সোমবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

স্বাধীনতা রক্ষা।তাবিব মাহমুদ এবং রানা। বাংলা প্রতিবাদী রেপ গান। Shadhinota Rokkha | Tabib Mahmud | Rana | Bangla Rap Song

স্বাধীনতা রক্ষা Shadhinota Rokkha Vocal : Tabib Mahmud  & Rana Lyrics : Tabib Mahmud স্বাধীনতা রক্ষা তাবিব মাহমুদ এবং রানা  Bangla Rap Song  স্বাধীনতা রক্ষা।তাবিব মাহমুদ এবং রানা। বাংলা প্রতিবাদী রেপ গান। Shadhinota Rokkha | Tabib Mahmud | Rana | Bangla Rap Song

স্বাধীনতা রক্ষা Shadhinota Rokkha

Vocal : Tabib Mahmud & Rana
Lyrics : Tabib Mahmud



স্বাধীনতা রক্ষা (তাবিব মাহমুদ এবং রানা)


হাজার সালাম শহীদ স্মরণে অতঃপর শুরু কবিতা রব
আমাদের গানে সুখ থাকে কম বিসর্গহীন দুঃখ সব
 
তোমাদের কাছে বিজয় মানে জিপিএ ফাইভে ভেজানো সুখ
আমার কাছে বিজয় মানে যে আমার মায়ের মিষ্টি মুখ
 
আজ সৃষ্টিসুখের উল্লাসে দেখি অর্ধশত বছর পার আর
সুদ আসলের হিসাবে আমার দেশপ্রেমিকের জীবন পার
 
দেশবাসী শুনো কান দিয়ে বুঝো এ শব্দ মন দিয়ে
অন্যায় দেখে তুমি কি বাধা প্রদান করছো হাত দিয়ে
 
নাকি ধৈর্য্য তোমার পাহাড় সমান রবার্ট ব্রুজের মাইরে বাপ
ধৈর্য্য যদি আর্ট হয় তবে জিতবে তুমি বিশ্বকাপ
 
ক্যালেন্ডারের পাতায় ঘুড়ে বিজয় দিবস আছে ঠিক
সবুজ লালের নতুন জামায় আমিতো তুলছি রঙিন পিক
 
আমিতো করিনি অংশগ্রহণ একাত্তরের সংগ্রামে
রাখিনি কোনো অবদান আমি মুক্তিযুদ্ধ আঞ্জামে
 
আমি শুধু আজ বুঝতে শিখেছি আমিই আনব নতুন দিন
অর্জন থেকে স্বাধিনতাটা রক্ষা করাই বেশ কঠিন কাজ

অর্জন থেকে বড় স্বাধীনতা রক্ষা.....

সুজলা সুফলা শষ্য শ্যামলা সোনার বাংলাদেশ
দেখেছি নদীমাতৃক মাতৃভূমিতে বেপোরোয়া পরিবেশ
 
দেখেছি সকালের রোদ ফিকে হয়ে যায় শ্রম ঘাম শুষে জোক
আমার শব্দেরা শুধু হাহাকার করে চাড়া দিয়ে উঠে শোক
 
বিজয় উৎসব মানি না আমি লাভ লস বুঝি না
আমি চেতনার সাথে প্রতারণা করে বিলাসিতা খুজি না
 
শোন জনগণ তুমি বোকামন নিয়ে অকারণে কেনো খাটো
তুমি দেশপ্রেম বলে দুর্নীতিবাজ পাদুকা কেনো যে চাটো
 
আমার বেদনা জেগেছে মনে আমার মন চায় যেতে বনে
যেখানে জীবন পেয়েছে জীবনের স্বাদ জীবন আত্নদানে
 
বিজয় দেখেছি এনেছিলো যেটা আমার পূর্বপুরুষ
আমি নিজে কী করেছি দেশের জন্য উড়া..নো ছাড়া এ ফানুস
 
আমার বেকরত্বের অভিশাপে আজ মৃতপ্রায় সংসার
জানে দারিদ্র্য আর ক্ষুধার কষ্টে মেধাগুলো ছাড়খার
 
আমার বিজয় হয়েছে মাতৃভূমির আমিতো পাইনি স্বাদ
যেদিন বেকার ঘুচবে সেদিন কাটবে আমার ক্লান্ত রাত         

র্জন থেকে বড় স্বাধীনতা রক্ষা.....................

তেলবাজ (তেলবাজ হইতে সাবধান) - শুভ্র মেহেদী

তেলবাজ - শুভ্র মেহেদী বাংলা ব্লগার


শব্দের পেছনে শব্দ জুড়ে দিয়ে, বিশেষ কোনো শ্রেণীর পোষা কুকুরের মতন হাটু অবধি ঝুলে থাকা লোভী জিভ বের করে পা অথবা গা চেটে দেয়া অতি সহজ। তেলবাজি আমাদের সমাজের একটি ভয়ানক ব্যাধি। এ ব্যাধির না আছে কোনো ভ্যাকসিন, না আছে কোনো প্রতিরোধ ব্যবস্থা। বিত্তশালী-প্রভাবশালী ব্যক্তিদের পেছনে সর্বদাই এক শ্রেণীর তেলবাজ চাটুকারদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। যারা নিজেদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় ছাড়া আর কোনো কিছু দেখতে পায়না। এই শ্রেণীর তেলবাজরা মাঝে-মধ্যে নিজের মালিককেই অতিরিক্ত তেলে ডুবিয়ে মারে। আমার এই ক্ষুদ্র লাইনগুলো সমাজের সব প্রভাবশালী ভালো মানুষগুলোর জন্য। একবার মোহ কাটিয়ে, চারদিকে তাকিয়ে দেখুন, “ আপনার চারপাশের পোষা তেলবাজগুলো আপনার অজান্তেই আপনার ক্ষতি করছে না তো???
বি:দ্র: তেলবাজ হইতে সাবধান
শুভ্র মেহেদী

রবিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সি ছেড়ে বারনার্ড’স গ্যালাক্সির দিকে শয়তানের যাত্রা Satan's journey from the Milky Way galaxy to Bernard's galaxy

মুক্তপাঠ, মুক্তমনা বাংলা ব্লগ- শুভ্র মেহেদী অনিয়ম অর্থ  অন্যায় বিধান অর্থ  অবস্থানকারী অর্থ  বিধিবদ্ধ আইন অর্থ শয়তানের যাত্রা Satan's journey from the Milky Way galaxy to Bernard's galaxy গ্যালাক্সি কী  মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সি উইকিপিডিয়া  গ্যালাক্সি কয়টি  ছায়াপথ কী  ছায়াপথ অর্থ  গ্যালাক্সির নাম  গ্যালাক্সি কাকে বলে  ছায়াপথ কোন আকাশে দেখা যায়

মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সি ছেড়ে বারনার্ড’স গ্যালাক্সির দিকে শয়তানের যাত্রা Satan's journey from the Milky Way galaxy to Bernard's galaxy


এদেশে নীতিমালা সর্বেসর্বা অথচ বাস্তবায়ন শূণ্যে। এ শূন্য সে শূন্য নয়, এ শূন্য মহাশূন্য!! কি  গোলক ধাঁধায় (জটিল পথ, যেখান হইতে সহজে বাহির হওয়া যায়না [বিশেষ্য পদ] ) ফেলে দিলাম ?
ইদানিং দেশে বড় বড় বুদ্ধিজীবির জন্ম হচ্ছে যত্রতত্র। যারা উদ্ভটসব আইনের জন্ম দিচ্ছে। যে আইন প্রোয়োগের আবার দুটি করে দিক থাকে, একই আইন ব্যক্তিভেদে ভিন্নরূপ ধারণ করে। 
ধরেন আপনি এক (০১) পোটলা 
গাঁজাসহ ধরা পড়লেন, আপনার বিরুদ্ধে মাদক আইনে, গাঁজা বা ভাং গাছের শাখা-প্রশাখা, পাতা, ফুল ইত্যাদির দ্বারা তৈরি মাদকের পরিমাণ ৫ কেজি বা তার কম হলে ৬ মাস থেকে ৫ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড, মাদকের পরিমাণ ৫ কেজি থেকে ১৫ কেজির মধ্যে হলে ৫ থেকে ৭ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড এবং মাদকের পরিমাণ ১৫ কেজির বেশি হলে ৭ থেকে ১০ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড হবে।
অথচ যার গোডাউনের বা সংরক্ষণে ১৫ টন গাঁজা থাকে সে কিন্তু সমাজের বিত্তশালী এবং সনামধন্য এবং সম্মানী ব্যক্তি। হতে পারে সে প্রতি বছর পবিত্র কাবা শরীফে স্বপরিবারে হজ্জ করতে মক্কা গমন করেন। মাঝে-মধ্যে আপন মনে ভাবি, ”উনারা যখন আরাফার ময়দানে শয়তানের উদ্দেশ্যে পাথর নিক্ষেপ করে তখন শয়তান কি বার বার বলে ওঠে না, ’রক্তের সাথে বেঈমানী’?” যাইহোক, বর্তমান প্রেক্ষাপট এমন রূপ ধারণ করেছে, মানুষের শয়তানিতে অতিষ্ট হয়ে সব শয়তান মঙ্গলে পালিয়েছে। মানুষ যে মঙ্গলে বসতি স্থাপনের চেষ্টা চালাচ্ছে সে খবর হয়তো শয়তানের অজানা। ইসস আগেভাগে জানতে পারলে শয়তান হয়তো 
মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সি ছেড়ে বারনার্ড’স গ্যালাক্সি (এনজিসি ৬৮২২) অথবা এমজিসি ১ গ্যালাক্সির উদ্দেশ্যে যাত্রা করতো।

হতবাক হয়ে তাকিয়ে থাকি। এ দেশ আমার না, এই মৃত্যু উপত্যকা আমার না - শুভ্র মেহেদী

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্লগ সাইট  সকল বাংলা ব্লগ  বাংলা ব্লগ সাইট  বাংলা ব্লগ তালিকা  ব্লগ লেখার নিয়ম  জনপ্রিয় বাংলা ব্লগ  সেরা ব্লগার  ব্লগার অর্থ কি বাংলা মুক্তমনা ব্লগার- শুভ্র মেহেদী হতবাক হয়ে তাকিয়ে থাকি এ দেশ আমার না, এই মৃত্যু উপত্যকা আমার না - শুভ্র মেহেদী I get surprised from time to time. I looked stunned. I want to express the words stuck in my throat again and again বাংলা মুক্তমনা ব্লগার- শুভ্র মেহেদী হতবাক হয়ে তাকিয়ে থাকি এ দেশ আমার না, এই মৃত্যু উপত্যকা আমার না - শুভ্র মেহেদী I get surprised from time to time. I looked stunned. I want to express the words stuck in my throat again and again


আমি মাঝে-মধ্যে অবাক হয়ে যাই। হতবাক হয়ে তাকিয়ে থাকি। গলার ভেতর আটকে থাকা কথাগুলো বার বার প্রকাশ করতে ইচ্ছে হয়!! কিন্তু পারি না, হয়তো পারবোও না।  এ দেশ আমার না, এই মাটি-স্বাধীনতা আমার না। স্বাধীনতার এতগুলো বছর পরেও পথ চলতে বুকটা ধরফর করে। চারদিকে পোড়া গন্ধ। মরা পোড়ার গন্ধ, বিবেক পোড়ার গন্ধ। ওরা নিরাপদ, আমরা না। কর্মের স্বাধীনতা থেকে বাকস্বাধীনতা অথবা দেখা কিংবা শোনার স্বাধীনতা, এমন কি জন্ম বা মৃত্যুর স্বাধীনতা একদল রাক্ষস নিজেদের আয়ত্বে রেখেছে।  এ দেশ আমার না, এই মৃত্যু উপত্যকা আমার না। আমি উদ্ভাস্তু, আমি যাযাবর। আমি হারতে হারতে জিতে  যাওয়া শুক্রানুর পরাজিত অথবা মৃত অস্তিত্ব। 

I get surprised from time to time. I looked stunned. I want to express the words stuck in my throat again and again !! But I can't, maybe I can't. This country is not mine, this land-freedom is not mine. Even after so many years of independence, the chest is still moving. The smell of burning all around. The smell of burning dead, the smell of burning conscience. They are safe, we are not. Freedom of speech, freedom of speech, freedom of speech, freedom of speech, freedom of speech, freedom of speech, freedom of speech This country is not mine, this death valley is not mine. I am a nomad, I am a nomad. The winning existence of the sperm that I win and lose.

শুভ্র মেহেদী (Suvro Mehedi )
চিরকুটবিডি-ChirkuttBD

মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০২১

ভ্রম সমীকরণ - মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী।।প্রকাশনী : চিরকুট (বই রিভিউ)

ভ্রম সমীকরণ Vrom Somikoron মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী প্রচ্ছদ শিল্পী: জুলিয়ান বইয়ের ধরণ: সায়েন্স ফিকশন প্রকাশনী: চিরকুট মূদ্রিত মূল্য: ১৫০ টাকা

বইয়ের নাম: ভ্রম সমীকরণ
বইয়ের লেখক: মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী
প্রচ্ছদ শিল্পী: জুলিয়ান
বইয়ের ধরণ: সায়েন্স ফিকশন
প্রকাশনী: চিরকুট
মূদ্রিত মূল্য: ১৫০ টাকা

বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী, ২০২১

করোনাকালীন প্রেক্ষাপটে বাল্যবিবাহ - রাকিব হাসান

করোনাকালীন প্রেক্ষাপটে বাল্যবিবাহ - রাকিব হাসান বহু বিবাহের কুফল  কৈশোরে বিয়ে না করার ব্যাপারে ব্যক্তিগত ইচ্ছাই একমাত্র উপায়  বহুবিবাহের কুফল  বিবাহের সংজ্ঞা  বিবাহ সংক্রান্ত আইন  মুসলিম বিবাহ আইন বাংলাদেশ

করোনাকালীন প্রেক্ষাপটে বাল্যবিবাহ

রাকিব হাসান।। সাম্প্রতিক সময়ে বাল্যবিবাহের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। অবশ্য কোভিড পরবর্তী সময়ে এই প্রবণতা যে বাড়বে, এমন আশঙ্কা প্রকাশ করে আসছিলেন বিশেষজ্ঞরা। করোনাকালে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে দ্বিগুণ বাল্যবিবাহ হয়েছে। গত ১০ মাসে কমপক্ষে ৫ হাজার বাল্যবিবাহ হয়েছে। বাল্যবিবাহ রোধে ২০১৭ সালে পাস হওয়া আইন অনুযায়ী, কোনো নারী ১৮ বছরের আগে এবং পুরুষ ২১ বছরের আগে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলে বিবাহসংশ্লিষ্টদের জেল-জরিমানা করা হবে। 


বাল্যবিবাহের দিক দিয়ে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান চতুর্থ। ইউনিসেফের তথ্য অনুযায়ী, এদেশে ৫৯ শতাংশ মেয়ের বয়স ১৮ বছর হওয়ার আগেই বিয়ে হয়।আর ২২ শতাংশ মেয়ের বিয়ে হয় ১৫ বছরের আগে। 

করোনাকালে স্কুল বন্ধ থাকায় অর্থনৈতিক সংকট, সামাজিক নিরাপত্তাহীনতা,পাড়া-প্রতিবেশীদের প্রভাবে অভিভাবকেরা গোপনে মেয়েদের বিয়ে দিয়েছেন। এ ছাড়া স্থানীয় প্রশাসন ত্রাণ ও সংক্রমণের বিস্তার রোধে ব্যস্ত থাকায় বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে তেমনভাবে নজর দিতে পারেনি। 

অর্থনৈতিক সংকটে পরিবারগুলো বাজেট কমাতে চায়।এতে সহজ পদ্ধতি হিসেবে তাঁরা মেয়েকে বিয়ে দিয়ে দিতে চায়। করোনাকালের শুরুতে এ প্রবণতা থেকেই অনেক অভিভাবক মেয়েদের গোপনে বিয়ে দিয়েছেন। 

এক স্কুলেই ২০ বাল্যবিবাহঃ
নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার ধানুড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ছিল ৭১ জন। নবম শ্রেণিতে ভর্তি হয় ৬৩ জন। তবে শেষ পর্যন্ত সেখানে টিকে থাকে ৪৯ ছাত্রী। ঝরে পড়াদের বেশিরভাগ বাল্যবিবাহের শিকার হয়েছে বলে মনে করেন স্কুলটির প্রধান শিক্ষক মোঃ আলমগীর। তিনি বলেন, 'অভিভাবকদের অনেক বুঝিয়ে শুনিয়ে মেয়েদের বিয়ে ঠেকিয়ে পড়ালেখায় যুক্ত রাখার চেষ্টা করতাম।  কিন্তু করোনাকালে সেটা সম্ভব হয়নি। এ সময় কমপক্ষে ২০ মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে। বেশিরভাগই নবম শ্রেণির। বয়স কম থাকায় অনেক মেয়ের বিয়ের নিবন্ধন হয় না। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, বিয়ের দুই-তিন মাস পর মেয়েটিকে বাবার বাড়িতে ফেরত পাঠানো হয়'।

করোনাকালীন সময়ে অনেক প্রবাসী দেশে ফিরেছেন। অনেক মা-বাবা ফেরত আসা প্রবাসীদের সঙ্গে মেয়েদের বিয়ে দিয়েছেন। 

ব্র্যাকের গবেষণায় বলা হয়েছে,  ৮৫ শতাংশ বাল্যবিবাহ হয়েছে মেয়েদের ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তার কারণে। ৭১ শতাংশ হয়েছে মেয়েদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ার জন্য। বাইরে থেকে আসা ছেলে হাতের কাছে পাওয়া ৬২ শতাংশ বিয়ের কারণ ছিল। এখন স্থানীয় প্রশাসন ও স্থানীয় সরকার প্রশাসন করোনাকে প্রাধান্য দিয়েছে। বাকি কার্যক্রমগুলো প্রাধান্যের তালিকায় নিচের দিকে চলে গেছে। এজন্য নারীর প্রতি সহিংসতা ও বাল্যবিবাহ বেড়ে গেছে। 

মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নিনা গোস্বামী বলেন, 'জোর করে বিয়ে দেওয়ার ঘটনা আগের চেয়ে বেড়েছে।  আর আমাদের সহযোগী সংগঠনগুলো জানিয়েছে, প্রত্যন্ত এলাকায় বাল্যবিবাহ বেড়ে যাচ্ছে। '

বাল্যবিবাহ ও উত্যক্ততা ঠেকানোর জন্য মাইকিং, উঠান বৈঠকসহ বিভিন্নভাবে প্রচারণা চালানো যায়। যারা স্থানীয় প্রশাসনে ফোন করে নিজের বাল্যবিবাহ ঠেকাতে নিজেরা সহায়তা করে তাদেরকে পুরস্কৃত করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে। মেয়েদের স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলতে হবে। পরিবারে যদি মেয়েরা উপার্জনের মাধ্যমে অবদান রাখতে পারে, তাহলে নিজেদের অধিকার সম্পর্কেও সচেতন  হবে। বাল্যবিবাহ যে শাস্তিযোগ্য অপরাধ, তা এখনো অনেকে জানেন না। বাল্যবিবাহ রোধে পরিবার থেকে সচেতনতা তৈরি করতে হবে। যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতনতা এবং তরুণদের সচেতন করতে হবে। 

করোনা পরিস্থিতিতে নতুন নতুন অসংখ্য সমস্যার মধ্যে বাল্যবিবাহ সম্পর্কে সরকারের মনোযোগ কিছুটা সরে গেছে বলে মনে হয়। এ ক্ষেত্রে স্থানীয় প্রশাসনকে ইতিবাচক ভূমিকা পালন করতে হবে। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোকে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। আর প্রয়োজন পারিবারিক সচেতনতা ও সামাজিক আন্দোলনের। যে হারে বাল্যবিবাহ বাড়ছে, তাতে সচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি বিদ্যমান আইনের সঠিক প্রয়োগ দরকার। 

 

 
নামঃ রাকিব হাসান 
সলিমুল্লাহ মুসলিম হল, পলাশী,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। 

মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২১

মনিরামপুর উপজেলার ইতিহাস এবং ভৌগলিক অবস্থান

MAnirampur Upazila মনিরামপুর উপজেলার ইতিহাস এবং ভৌগলিক অবস্থান মনিরামপুর উপজেলার গ্রাম  মনিরামপুর সংবাদ  যশোর  যশোর জেলার ইউনিয়ন সমূহ  মনিরামপুর উপজেলার বড় ইউনিয়ন  মনিরামপুর উপজেলার ইতিহাস  মনিরামপুর ইউনিয়ন  মনিরামপুর গ্রাম

মনিরামপুর উপজেলার ইতিহাস এবং ভৌগলিক অবস্থান  

সংক্ষিপ্ত ইতিহাস :

এককালের স্রোতাস্বিনী, আজকের মরা নদী হরিহরের তীরে মণিরামপুর উপজেলা। জনশ্রুতি আছে রাজা সীতারাম রায়ের উকিল মুণিরাম রায়ের নাম ধরে জনপদের নাম হয়েছে মণিরামপুর। চাঁচড়া রাজবাড়ীর জনৈক মহিলা এখানে একটি মস্তবড় পুকুর খনন করেন। আজও তা কালেmonirampur_map  স্বাক্ষী হয়ে আছে। উনবিংশ শতকের প্রথম দশকে পুকুরটি খনন করা হয়। ত্রিমোহনী সংযোগ সড়কে রাজারা রাজগঞ্জ-মনিরামপুর কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ করেন। ১৭৮৫ সাল হতে মনিরামপুর খ্যাত। নির্বাচিত প্রথম চেয়ারম্যান জনাব মো: লুৎফার রহমান এবং প্রথম নির্বাহী অফিসার জনাব মো: এস, এম, মিজানুর রহমান। জেলা সদর হতে মনিরামপুরের দুরত্ব ২০ কিলোমিটার।

 

ভৌগোলিক অবস্থান :

৪৪৪.৭২ বর্গ কিলোমিটার আয়তন বিশিষ্ট মনিরামপুর উপজেলা উত্তরে যশোর সদর, দক্ষিণে কলারোয়া, কেশবপুর ডুমুরিয়া, পূর্বে অভয়নগর এবং পশ্চিমে ঝিকরগাছা উপজেলা নিয়ে বেষ্টিত।

Featured post

ভ্রম সমীকরণ - মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী।।প্রকাশনী : চিরকুট (বই রিভিউ)

বইয়ের নাম : ভ্রম সমীকরণ বইয়ের লেখক : মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী প্রচ্ছদ শিল্পী : জুলিয়ান বইয়ের ধরণ : সায়েন্স ফিকশন প্রকাশনী : চিরকুট মূ...